গরমের মেকআপ কেমন হওয়া উচিত

প্রতিটি ব্যক্তি নিজেকে সুন্দর করে তুলতে চায়। যার জন্য তারা করে থাকে অনেক কিছু। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রূপচর্চা। বর্তমানে মেয়েরা মেকআপ করতে বেশি পছন্দ করে। কারণ একটি মেকআপ লুকস একটি মেয়ের ব্যক্তিত্ব পাল্টে দিতে পারে। মেকআপ এমন একটি জিনিস যা করে তোলে সকল নারীকে সুন্দর। তবে মেকআপ সঠিকভাবে না করতে পারতে নারীর পুরো সৌন্দর্যটা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই যখনি মেকআপ করবেন ত্বক ও ঋতুর কথাটা মাথায় রেখে করা উচিত। আসুন জেনে নেই গরমে মেকআপ কেমন হওয়া উচিত।

মুখের মেকআপ: যেহেতু গরম প্রতিদিনই একটু একটু করে বাড়বে, তাই মুখের মেকআপ করার সময় সচেতন থাকুন। কোনও ভারী ক্রিম বেসড ফাউন্ডেশন বাছবেন না, একটু গরমেই গলে টলে একসা হয়ে যাবে। বদলে বেছে নিন হালকা ওয়াটার-বেসড ফাউন্ডেশন। এটি অনেক হালকা, ত্বকের সঙ্গে ব্লেন্ডও হয়ে যায় চট করে। মুখ পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজার লাগানোর পর ফোঁটা ফোঁটা করে ফাউন্ডেশন সারা মুখে, গলায় আর কানে লাগিয়ে আঙুল দিয়ে আস্তে আস্তে ড্যাব করে করে মিশিয়ে দিন। মেকআপ স্পঞ্জ দিয়েও ব্লেন্ড করতে পারেন। তবে কখনও ক্রিম মাখার মতো ঘষবেন না। তাতে মুখ ফ্যাকাসে সাদা দেখানোর ভয় আছে। বেছে নিন আপনার ত্বকের রঙের সবচেয়ে কাছাকাছি ফাউন্ডশনের শেড। একটি ত্বকের রঙের কাছাকাছি ও একটি এক শেড গাঢ় ফাউন্ডেশন কিনে রাখলে প্রয়োজনমতো কনট্যুরিং করতে পারবেন। ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার বা কমপ্যাক্ট দিয়ে সেট করে দিন।

মুখে বাড়তি আবেদন আনতে গালের দু’পাশে বাদামি ঘেঁষা ব্লাশঅনের ছোঁয়া দিন। ব্লাশঅনের হালকা প্রলেপ মুখে রঙের ছোঁয়া আনব। এ ক্ষেত্রেও আপনার ত্বকের রঙের উপর ভিত্তি করে বেছে নিন ব্লাশঅন। ব্রাউন, গোলাপির নানা শেডের ব্লাশঅন বাঙালি মেয়েদের ত্বকের জন্য আদর্শ।

গরমকালে মেকআপ করার সময় একটু বেশি সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। কারণ অতিরিক্ত গরমে মেকআপ গলে গিয়ে নষ্ট হয়ে যায়। তাই মেকআপ করার সঙ্গে আপনাদের উচিত কয়েকটি টিপস অনুসরণ করা।

টিপস ১: অয়েলি স্কিন যাদের তাদের মেকআপ করার আগে অবশ্যই একটা দিক খেয়াল রাখতে হবে সেটা হল ত্বক পরিষ্কার করা। কোন ভালো অয়েলি স্কিনের ফেসওয়াশ দিয়ে ভালোভাবে মুখ পরিষ্কার করে নিন। ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করা হয়ে গেলে একটা টিস্যু পেপারের সাহায্যে মুখের অতিরিক্ত অয়েল মুছে ফেলুন।

টিপস ২: ত্বক পরিষ্কার হয়ে গেলে মেকআপের দ্বিতীয় স্টেপ হল গোলাপ জল ব্যবহার করা। গোলাপ জল যেকোনো ত্বকের জন্য খুব উপকারী আর এটি পুরো দিনের জন্য ত্বক করে রাখে তরতাজা। যাদের অয়েলি ত্বক তাদের গরমে খুব দ্রুত মেকআপ নষ্ট হয়ে যায়। তাই মেকআপ দীর্ঘক্ষণ সেট রাখার জন্য অবশ্যই গোলাপ জলে স্প্রে করে নিন।

টিপস ৩: গোলাপ জল লাগানো পরে আপনার তব একটু ময়শ্চারাইজ করে নিন। এতে মুখের আর্দ্রতা বজায় থাকবে। তাছাড়াও মেকআপ করার আগে ময়শ্চারাইজিং করা খুব প্রয়োজন।

টিপস ৪: অয়েলি স্কিনের উপর মেকআপ আগে প্রাইমার লাগানো অত্যন্ত জরুরী, এটা মুখের অতিরিক্ত তেল কমাতে সহায়তা করে। এছাড়াও ত্বকে প্রাইমার লাগালে মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী হয় এবং ফাউন্ডেশনটি লং লাস্টিং হয়।

টিপস ৫: প্রাইমারের পর এবার মুখে ফাউন্ডেশন লাগানোর সময়। তবে ফাউন্ডেশন লাগানোর আগে আপনার ত্বকের কালারের সঙ্গে মানানসই ফাউন্ডেশন বেছে নিন। এবার ফাউন্ডেশনের সঙ্গে সামান্য পরিমাণ অয়েল ফ্রি ক্রিম মিশিয়ে নিন। একটি স্পঞ্জে ফাউন্ডশন নিয়ে হালকা ভাবে মুখে আপ্লাই করে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিন। ফাউন্ডেশন যত ভালোভাবে ব্লেন্ড করবেন মেকআপ তত ভালো এবং দীর্ঘস্থায়ী হবে।

টিপস ৬: চোখের নীচে ডার্ক সার্কেল ধাকার জন্য কনসিলার চমৎকার কাজ করে। প্রথমে হাতের আঙুলের সাহায্য কনসিলার চোখের চারপাশে লাগিয়ে একটি স্পঞ্জের দ্বারা ব্লেন্ড করে নিন। অয়েলি ত্বকের জন্য মেবেলিন ফিট মি কনসিলার খুব ভালো।

টিপস ৭: ফাউন্ডেশন এবং কনসিলার লাগানোর পরে ফেস পাউডার দিয়ে মেকআপ সেট করে নিলেই আপনার মেকআপ রেডি।

উপরের পদ্ধতিতে মেকআপ টিপসগুলি গরমকালে অবশ্যই ট্রাই করে দেখবেন। আপনার মেকআপ অনেক্ষন পর্যন্ত স্থায়ী হবে। আর ত্বকের জন্য উপযুক্ত, কালার ভ্যারিয়েশন মেকআপ প্রোডাক্ট পেতে চলে আসুন বায়োজিন কালার কসমেটিকসে। কালার কসমেটিকস পাওয়া যাচ্ছে বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালসের ২টি ব্রাঞ্চে, ধানমন্ডি সিগনেচার ব্রাঞ্চ ও উত্তরা ব্রাঞ্চে। এছাড়া পাওয়া যাচ্ছে অনলাইনে। বিস্তারিত জানতে ও অনলাইনে অর্ডার করতে ভিজিট করুন-http://bit.ly/2LZso57

Facebook Comments