সৌন্দর্য্যে শসার ব্যবহার

Title-28


শশা হচ্ছে সালাদের মধ্যে বহুল ব্যবহৃত একটি সবজি। সহজলভ্য এবং সুলভ এই সবজিটির ব্যবহার শুধু সালাদের মধ্যেই কিন্তু সীমাবদ্ধ নয়। খাওয়া-দাওয়ার পাশাপাশি এটি রূপচর্চার কাজেও ব্যবহৃত হয়। স্বাস্থ্যরক্ষার পাশাপাশি শশা আমাদের ত্বকের যত্নে এটা উপকারী। লো ক্যালরি এবং ডায়েট্রি ফাইবারে সমৃদ্ধ এই সবজিটি তাই স্থান করে নিয়েছে রূপসচেতন নারীদের ডায়েট চার্টে।
ত্বকের যত্নে শসার ব্যবহার অনেক আগে থেকেই প্রচলিত। সতেজ ত্বকের জন্য যে শসা একটি অপরিহার্য নাম তা সবারই জানা। শসায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। এছাড়াও এর খোসাতে আছে প্রচুর ডায়টারি ফাইবার। যা ত্বককে নরম ও সতেজ রাখতে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও রূপচর্চায় শসার বহুমাত্রিক ব্যবহার। শসার ফেস প্যাক ত্বকের পক্ষে খুব উপকার। শসার ফেস প্যাক ত্বক টানটান রাখতে সহয়তা করে। তাই আজ আপনাদের জন্য রইল ত্বকের যত্নে শসা র কিছু ফেস প্যাক যা খুব সহজেই বাড়িতে তৈরি করা যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক রূপচর্চায় শসার ব্যবহার-
উজ্জ্বল ত্বকের জন্য: শশার ৯৫% উপাদানই হচ্ছে পানি। এর ফলে শশা খাওয়ার মাধ্যমে ত্বক হাইড্রেটেড এবং ময়েশ্চারাইজড থাকে। শশার বিচিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই এবং পটাশিয়াম যা ফাইন লাইন্স, রিংকেল সহ বার্ধক্যের বিভিন্ন ছাপ দূর করে ত্বক উজ্জ্বল এবং যৌবনদ্বীপ্ত রাখে। শসার টুকরা ছেঁচে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে লাগান। ১৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন এটি।
শুষ্ক ত্বকের যত্নে: ৩ টেবিল চামচ শসার রসের সঙ্গে ১ টেবিল চামচ দুধের সর মিশিয়ে গলা ও মুখের ত্বকের লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি রুক্ষ ও শুষ্ক ত্বকের প্রাণ ফেরাবে।
তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে: তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ দেখা যায় বেশি। ৩ টেবিল চামচ শসার রসের সঙ্গে ২ টেবিল চামচ বেসন ও ১ টেবিল চামচ বাটার মিল্ক মেশান। ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ভালো করে নেড়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ৩০ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দূর হবে ত্বকের অতিরিক্ত তেল।
বয়সের ছাপ লুকাতে: বয়সের ছাপ লুকাতে শসার জুড়ি মেলা ভার। ২ টেবিল চামচ টক দই, আধা চামচ মধু এবং লেবুর রসের সাথে ২ চামচ গ্রেট করা শশা এবং ২ টি ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভালো মতো মেশান। এবার এটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ফাইন লাইন্স, রিংকেল দূর করে ত্বক টানটান এবং সুন্দর করে।
রোদে পোড়া দাগ দূর করতে: ১ টেবিল চামচ শসার রসের সঙ্গে ১ টেবিল চামচ ডিমের সাদা অংশ ও ১ টেবিল চামচ দই মিশিয়ে রোদে পোড়া ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
ডার্ক সার্কেল দূর করতে: শশাতে থাকা এন্টি অক্সিডেন্ট এবং সিলিকা চোখের ডার্ক সার্কেল কমিয়ে চোখের চারপাশের স্কিন ভালো রাখে। চোখের আশেপাশের কালচে দাগ দূর করতে চাইলে ফ্রিজের ঠাণ্ডা শসা স্লাইস করে চোখের ওপর দিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। প্রতিদিন এভাবে ব্যবহার করলে ধীরে ধীরে কমে যাবে ডার্ক সার্কেল।
ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য: ২ টেবিল চামচ শসার রসের সাথে গোলাপ জল এবং মুলতানি মাটি মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ফেলুন।
সারা দিনের ক্লান্তি বয়ে বাড়ি ফিরে ত্বকের যত্নে এটা সেটা করা একটু কঠিনই। তার উপর ত্বকের জন্য না নিলেও নয়। বিউটি পার্লারের ওপর ত্বকের যত্ন ছেড়ে দিয়েও নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না। কারণ পার্লারের ফেসিয়াল, ব্লিচ ও ফেয়ার পলিশে থাকে নানাবিধ রাসায়নিক উপাদান। এই সমস্যা সমাধানে বাড়িতে বসে তৈরী করে নিতে পারেন ত্বকের যত্নের এই ফেসপ্যাকগুলো। আর বায়োজিন তো আছেই আপনার পাশে।


Facebook Comments