শরীরের ফাটা দাগ ঠিক করার পদ্ধতি

anti-stress-mark

শরীরে ফাটা দাগ বা স্ট্রেচ মার্ক এর সমস্যায় অনেকেই ভোগে থাকেন । আমাদের শরীরের ত্বকে বিভিন্ন অংশে এই ফাটা দাগগুলো দেখা যায়। চামড়ার উপরের স্বাভাবিক ত্বকের রংয়ের থেকে খানিকটা হালকা আঁচড়ের মতো দাগ পড়াকে শরীরের ফাটা দাগ বা স্ট্রেচ মার্ক বলে । চামড়া স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি টান পড়লে এ ধরনের দাগ সৃষ্টি হয়। শরীরের আয়তন যখন বেড়ে যায়, ত্বক তখন স্ট্রেচ করে বাড়তি আয়তনকে ঢাকতে । স্ট্রেচ মার্ক শরীরের বিভিন্ন অংশে হয়ে থাকে যেমন : পেটে ,পায়ের রানে ,কোমর, হাত , ঘাড়, হাটুর উরুতে ইত্যাদি ।

চলুন জেনে নেওয়া যাক শরীরের স্ট্রেচ মার্ক কেন হয় এবং এর সমাধাণ কি ।

১। সাধারণত শরীরের অতিরিক্ত ওজন বেড়ে গেলে শরীরে ফাটা দাগ বা স্ট্রেচ মার্ক হয়ে থাকে ।

২। হঠাৎ করে লম্বা হওয়ার কারণে এ ধরনের দাগ তৈরি হতে পারে।

৩। গর্ভ পরবর্তী সময়ে নারীদের তলপেটে চামড়ার টানজনিত কারণে এই ধরনের দাগ হয়ে থাকে।

৪। হরমোনের পরিবর্তন এর ফলে ফাটা দাগ বা স্ট্রেচ মার্ক হয় ।

৫। বয়ঃসন্ধিকালে শরীরে ফাটা দাগ হয়ে থাকে ।

ফাটা দাগ দূর করার উপায় :

১। কোনো লোশন, ক্রিম বা তেল ব্যবহারের মাধ্যমে এই ফাটা দাগ থেকে পুরোপুরি ঠিক করা সম্ভব না । তবে স্বাভাবিকভাবেই ত্বকের যে কোনো ফাটা সমস্যারই মূল কারণই হল শুষ্কতা। আর্দ্রতার অভাবে ত্বক ফাটতে পারে। তাই এ ক্ষেত্রেও ত্বকের আর্দ্রতার ভারসাম্য ধরে রাখতে হবে।

২। এলভেরা ফাটা দাগে চমৎকার কাজ করে । এলভেরা প্রতিদিন শরীরের ফাটা স্থানে ১০ মিনিট মাসাজ করুন । এতে ফাটা দাগ দূর হয়ে যাবে ।

৩। ফাটা দাগ দূর করার বিশেষ ক্রিম ব্যবহার করতে হবে ।এতে দ্রুত ফাটা দাগ দূর হয়ে যাবে । মেটারনিয়া এন্টি স্ট্রেচ মার্কস ক্রিম খূভ ভাল ও কার্যকরী ক্রিম ফাটা দাগের জন্য ।

৪। প্রচুর পানি পান করতে হবে। ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সারা বছরই ব্যবহার করতে হবে ময়েশ্চারাইজার।

৫। ওজন বেড়ে না যায় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। পুষ্টিকর খাবার, প্রচুর সবজি ও ফল খেতে হবে নিয়মিত। সুস্থ ত্বকের জন্য প্রয়োজন বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান আর তাই সঠিক খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলাও জরুরি।

৬। এপ্রিকট ফলের বিচি ফেলে দিয়ে এর পেস্ট বানিয়ে দাগের উপর ১৫-২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন প্রতিদিন ২ বার।

৭ । চিনি, লেবুর রস ও অলিভ অয়েল মিশিয়ে স্ক্রাব বানিয়ে তা প্রতিদিন ফাটা দাগের উপর ৫-১০ মিনিট ম্যাসেজ করুন।

৮। প্রতিদিন ৩ বার ফাটা স্থানের উপর ডিমের সাদা অংশ ৫-১০ মিনিটের জন্য ম্যাসেজ করুন। এতে বেশ উপকার পাওয়া যাবে।

৯। লেবুর একটি টুকরা নিয়ে দাগের উপর ১৫ মিনিট ধরে ম্যাসেজ করুন। এতে বেশ উপকার পাওয়া যাবে।

১০। এর পাশাপাশি কিছু চিকিৎসা করতে হবে ।

স্ট্রেচ মার্ক দূর করার অত্যাধুনিক চিকিৎসা ও এর বিশেষ কার্যকরী ক্রিম বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালস পাওয়া যায়।

 

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *