ত্বকের সেরাম কি ও কিভাবে কাজ করে ?

এটা এখন আর বলার অপেক্ষা রাখে না যে , ত্বকের যত্নে সেরাম কতটা জরুরী । প্রত্যেক সৌন্দর্য সচেতন নারীর প্রথম পছন্দ ফেইস সেরাম । আমাদের কর্মব্যাস্ত জীবন এ দীর্ঘ সময় ধরে রূপচর্চা করতে অনেকেই পছন্দ করেন না ফলে ত্বক হয়ে যায় মলিন, নিস্প্রান। এই সমস্যার সমাধান করতে পারে ফেইস সেরাম। জাস্ট কইয়েক সেক্যান্ড সময় , ত্বক ক্লিন করার পরে আপনি ব্যবহার করতে পারেন সেরাম। আপনার প্রত্যেক দিনের রূপচর্চার অনুসঙ্গ হতে পারে এই সেরাম। আমরা আজ কিভাবে ত্বকের যত্ন নিচ্ছি তার ওপর নির্ভর করবে ভবিষ্যতে কেমন দেখাবে আমাদের ত্বক। অনেকেই শুধু সানস্ক্রিন ও মশ্চারাইজার ব্যবহার করে থাকেন কিন্তু স্কিন কে বুস্ট আপ করার জন্য প্রয়োজন সেরাম। তার আগে আমাদের জানতে হবে সেরাম কি, এটা কিভাবে স্কিন কে গ্লোয়িং ও হেলদি রাখতে সাহায্য করে।

ফেইস সেরাম কি ?

সেরাম খুব হাল্কা কিন্তু ঘন এবং এটা অন্য ফেইস ক্রিম এর থেকে অনেক ছোট Molicule সমৃদ্ধ যার ফলে স্কিন এর ডিপ লেয়ার অব্দি পৌছাতে পারে। এটা শুধু স্কিন এ পুষ্টি যোগাই না , স্কিন এ খুব তারাতাড়ি মিশে যায় এবং স্কিন কে ভিতর থেকে রিপেয়ার করে। সেরাম এ একটিভ ইনগ্রাডিয়েণ্ট এর পরিমান ১০%-৭০% যা অন্য কোন ক্রিম এ থাকে না।

সেরামের উপাদান গুলো কিভাবে কাজ করেঃ

ভিটামিন সিঃ

এটা স্কিন এর এন্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। সূর্যের ক্ষতিকারক UV রশ্মি থেকে স্কিন কে রক্ষা করে। স্কিন এর সান বার্ন কমাই, স্কিন কে আদ্রতা প্রদান করে ফলে স্কিন হয়ে ওঠে দীপ্তিময় । আমাদের Vit C সেরাম এক্ষেত্রে হতে পারে আপনার স্কিন এর নিত্যদিনের সঙ্গি।

হায়ালুরনিক এসিডঃ

ডারমাটোলজিস্টদের অনুসারে, স্কিন এর আদ্রতা দানকারী হিসেবে পরিচিত এই হায়ালুরনিক এসিড। বয়স বারার সাথে সাথে স্কিন এর আদ্রতা কমতে থাকে, ফলে স্কিন সুস্ক হয়ে যায়, স্কিন পরতে থাকে রিঙ্কল, ফাইন লাইন সহ বারধক্যের লক্ষন। এই উপাদান টি ১০০০ গুন বেশি স্কিন এ আদ্রতা দান করে, কোলাজেন ও ইলাস্টিন এর মধ্যে গ্যাপ কমাই যার কারনে স্কিন হয় টানটান, উজ্জ্বল ও মস্রন।

রেটিনলঃ

ভিটামিন এ এর ডেরিভেটিভ হোল রেটিনল ।স্কিন এর সুরক্ষাই এই উপাদান এর অবদান অতুলনিও ।এটি মুলত স্কিন এর ড্যামেজ কমাতে সাহায্য করে। এটা স্কিন এ ব্লাড সার্কুলেশন এবং কোলাজেন উৎপাদন বারিয়ে দেই ফলে স্কিন এ আসে নতুন আভা। এটা স্কিন এর ফাইন লাইন কমাই,স্কিন কে টাইট করে , স্কিন এর পোর কমাতে সাহায্য করে। তবে এই সেরাম রাতে ব্যবহার করতে হবে।

সেরাম কিভাবে ব্যবহার করব ?

নখের আঙ্গুল এর সাহায্যে ২ থেকে ৩ ফোটা সেরাম নিয়ে মুখে ,চোখের চারপাশে, ব্যবহার করতে হবে। এটা খুব তারাতারি স্কিন এ মিসে যাবে এবং স্কিন কে পুষ্টি যোগাবে।

সেরাম এর পরে কেন মইসচারাইজার ব্যবহার করব ?

সেরাম স্কিন কে একটিভ উপাদান সুমহ সরবরাহ করে স্কিন কে সতেজ রাখে ভিতর থেকে কিন্তু মশ্চারাইজার স্কিন এর উপরের লেয়ার এ Nourishing এর সাথে ১ টা সুরক্ষা বলয় তৈরি করে।
কতবার সেরাম ব্যবহার করতে পারব?
স্কিন কন্ডিশন এর ওপর নির্ভর করবে আপনি কতবার ব্যবহার করবেন, তবে প্রতিদিন ২ বার ব্যবহার করলেই আপনি থাকবেন গ্লোইং আপনার স্কিন থাকবে সুস্থ।

স্কিন ভাল রাখতে আপনি যা করতে পারেন?

১। প্রথমেই আপনাকে হেলদি খাবার খেতে হবে, জাঙ্ক ফুড কে বলতে হবে বাই বাই।
২।পর্যাপ্ত ঘুম ও পানি পান করতে হবে। শীতে অনেকেই পানি কম পান করেন ।
৩। স্কিন কে ভালমত ক্লিন করতে হবে এবং সেরাম ব্যবহার করতে হবে।
৪। দিনে সান ব্লক ব্যবহার করতে হবে।
৫।প্রতিদিন হাল্কা এক্সরসাইস করতে হবে।

Related Product

[vc_column]

[/vc_column]

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *