ব্রণের স্থায়ী চিকিৎসা : বিশেষজ্ঞ মতামত

ব্রণ ত্বকের একটি সাধারণ সমস্যা । প্রায় প্রত্যেক Teenage এর ত্বকে ব্রণের অভিজ্ঞতা আছে, ব্রণের কারণে teenage দেড় মাঝে হতাশা বেড়ে যায় । ত্বকে যখন তৈলের পরিমান বেড়ে যায় এবং মৃতকোষ লোমকূপ বন্ধ করে দেয়, তখন ত্বকে ব্রণ উঠে।
ব্রণ শরীরের কিছু কিছু স্থানে বেশি দেখা যায় যেমন মুখ, ঘাড়, গলা, বুক এবং বাহুতে। যদিও ব্রণের কারণে কোনো স্বাস্থঝুঁকি থাকে না, তবে ব্রণের কারণে ত্বকে স্থায়ী গর্ত তৈরী হতে পারে। ব্রণ মানুষের ব্যাক্তিত্ব ও নষ্ট করে।

ব্রণ দেখতে কেমন দেখায় :

মানুষের ত্বকে ব্রণ বিভিন্ন রকমের হয় যেমন

WHITEHEADS:

এই ব্রণগুলো সাধারণত ত্বকের লোমকূপে তৈরী হয় এবং ত্বকের বিভিন্ন স্তরে ঢেকে থাকে এবং চাপ দিলে বের হয়ে আসে।

BLACKHEADS:

এইগুলো মূলত আক্রান্ত লোমকূপে থাকে। ব্যাক্টেরিয়া আক্রান্ত হয়ে এই ব্রণগুলো কালো দেখায়।

PAPULES, PUSTULES OR NODULES:

অনেক সময় inflammation বা ইনফেকশন এর কারণে লোমকূপের সাথের টিস্যু সমূহ জমাট বেঁধে যায় এবং শক্ত হয়ে যায়। ফলে এই ব্রণগুলো থেকে ব্যথা হয় ।

CYSTS:

এই ব্রণগুলো ত্বকের অত্যন্ত গভীরে থেকে তৈরী হয়। দীর্ঘদিন ত্বকে জমে থাকে ও মাঝে মাঝে পুঁজ হয়।

 

কেন কিছু মানুষের ব্রণ হয় আর কিছু মানুষের ব্রণ হয় না ?

কিছু কিছু মানুষের ঠিক কোন কারণে অনেক ব্রণ হয় তা এখনো অজানা। সাধারণত এন্ড্রোজেন নামক হরমোনের কারণে ব্রণ হয়ে থাকতে পারে। বয়ঃসন্ধিকালে ছেলে ও মেয়েদের এন্ড্রোজেন নামক হরমোন বাড়তে থাকে। এন্ড্রোজেনের অধিক নিঃসরণের ফলে ত্বকের তৈলের পরিমান বেড়ে যায় এবং Sebaceus গ্রন্থির অতিরিক্ত নিঃসরণের ফলে ত্বকে ব্রণ হয়। এন্ড্রোজেন হরমোনের পরিবর্তনের ফলে বা গর্ভাবস্থা বা পিল খাওয়া কমিয়ে দেয়া বা বাড়িয়ে দেয়ার ফলে তৈরী হয়।

বংশগত ব্যাপার ও থাকতে পারে যেমন পিতা মাতার মুখে ব্রণ থাকলে সন্তানের মুখে ও ব্রণ হতে পারে।

  • কিছু কিছু ওষুধ সেবনের ফলেও ত্বকে ব্রণ হতে পারে। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার প্রসাধনী ত্বকের লোমকূপ বন্ধ করে দেয়, ফলে
  • ত্বকে ব্রণের পরিমান বাড়তে থাকে।
  • ত্বক বেশি ঘষা বা rubbing ইত্যাদি কারণে ত্বকে ব্রণ হতে পারে।
  • ব্রণ খুঁটলে ব্রণ ত্বকের চারপাশে ছড়িয়ে পড়তে পারে
  • ত্বকে অপরিষ্কার কোনো কিছু লাগলে বা নিয়মিত পরিষ্কার না রাখলে ত্বকে ব্রণ হয়।
  • বয়ঃসন্ধি কালে হরমোনের পরিবর্তনের ফলে ত্বকে ব্রণ হয়।
  • মানসিক চাপের কারণেও ত্বকে ব্রণ হতে পারে।

ব্রণের চিকিৎসা

বিভিন্নভাবে ব্রণের চিকিৎসা নিতে পারেন। সাধারণ ব্রণ সাধারণত আপনা আপনি সেরা যায়, কিন্তু ব্রণ কখনো কখনো মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে।

NONPRESCRIPTION:

বিভিন্ন ঘরোয়া প্রযুক্তি ব্যবহারে আপনি ব্রণের চিকিৎসা করতে পারেন। এসিটিক অ্যাসিড, বেঞ্জয়েল পারঅক্সাইড, স্যালিসাইলিক অ্যাসিড এবং সালফার এর ব্যবহারে ব্রণের চিকিৎসা করা যেতে পারে। এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের লোশন, ক্রিম বা সাবান ও ব্যবহার করা যেতে পারে। আপনি যদি এইগুলো ২-৩ সপ্তাহ নিয়মিত ব্যবহার করেন, আপনার ত্বকের ব্রণ ভালো হয়ে যাবে।

PRESCRIBED ট্রিটমেন্ট :

আপনি বিভিন্ন ওষুধের মাধ্যমে এই ট্রিটমেন্ট নিতে পারেন যেমন adapalene, antibiotics, azelaic acid, benzoyl peroxide, dapsone, tazarotene, and tretinoin ইত্যাদি।

ORAL DRUG TREATMENTS:

আপনি বিভিন্ন ওষুধের খেয়েও ব্রণের ট্রিটমেন্ট নিতে পারেন। বিভিন্ন ধরণের এন্টি-বায়োটিক ট্রিটমেন্ট ইত্যাদি।
কিন্তু এইসব ট্রিটমেন্ট ত্বকের কোনো স্থায়ী চিকিৎসা না। সাময়িকভাবে ব্রণ ভালো হবে কিন্তু কিছুদিন পর ব্রণ আবার ফিরে আসবে।

ব্রণ এর স্থায়ী চিকিৎসা কি ?

একটি পরীক্ষায় দেখা যায় যে Blue Light এ ব্রণ বাঁচতে পারে না। আপনি একটি কাছের বোতলে কিছু পানি দিয়ে এতে Blue Light প্রবেশ করিয়ে দিন। কিছুক্ষনের মধ্যে পানি জীবাণুমুক্ত হবে।

Acne Blue মেশিনের Blue Light ব্রণের জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে এবং এই মেশিনের IR Heat ত্বকের তেল নির্গতকারী গ্রন্থিকে (sebaceous glands) repair করে, ফলে ত্বক তৈলাক্ত হয় না এবং ত্বকে আর কখনো ব্রণ হতে পারে না।
ইহা একটি Bio-Medical মেশিন, কোনো কেমিক্যাল নাই, FDA Approved, তাই কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হবার কোনো প্রকার সম্ভাবনা নাই। ইহা ব্রণের জন্য একটি অত্যাধুনিক চিকিৎসা,স্থায়ী চিকিৎসা ।

ব্রণ সহ আপনার ত্বকের যে কোনো চিকিৎসার জন্য বায়ো-জিন কস্মেসিউটিক্যালস এ যোগাযোগ করুন। আপনার যে কোনো জিজ্ঞাসার জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭০৮৪১১৪৭০ বা ০১৭০৮৪১১৪৭২ নম্বরে।

Related Product

[vc_column]

-37%

Skin Care

Whiten Set

৳ 6,350 ৳ 3,999

Hair Growth & Unwanted Hair Control

Dermedics SHR Roll On

৳ 2,450
View product
৳ 1,250
View product

Premium Skin Clinic Products

Skinclinic Vita C6 Cream

৳ 3,999
View product
[/vc_column]

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *