মেকআপেই ঢেকে যাবে ডাবল চিন

শরীরের ওজন বৃদ্ধি পেতে শুরু করলে যে কেবল পেট মোটা হয়, তা নয়, সেই সঙ্গে শরীরের বাকি পেশীরাও আলগা হতে শুরু করে। বাদ পরে না ফেসিয়াল মাসলও। তাই তো থুতনির নিচে জন্ম নেয় আরেক থুতনি, যাকে চিকিৎসা পরিভাষায় ডবল চিন বলা হয়ে থাকে। ডবল চিন বা থুতনিতে জমা মেদ অনেকের কাছেই আতঙ্কের বিষয়।

আর চিন্তার বিষয় হল তথাকথিত চিকিৎসার মাধ্যমে ডবল চিনের সমস্যাকে দূর করা যায় ঠিকই। কিন্তু তাতে অনেক সময় লেগে যায়। যাদের টাকা আছে তারা অস্ত্রপ্রচার করে ডাবল চিন দূর করে থাকেন।

কিন্তু অস্ত্রপ্রচার একটা নিরাপদ বিকল্প নয়, তাই আপনার ডাবল চিন ঢাকতে প্রাকৃতিক হ্যাক গুলো ট্রাই করুন। এমন অনেকই ঘরোয়া প্রতিকার রয়েছে, যা ডাবল চিন ঢাকতে বিস্ময়কর কাজ করে। এই বিষয়ে আমরা ডাবল চিন দূর করার উপায় এই ব্লগে জানিয়েছি। এছাড়াও আরও অনেক উপায় আছে এই সমস্যা থেকে মুক্তির।

পুরো শরীরের ওজন কমানোর প্রতিও নজর দিন। এছাড়াও, ভালো পরামর্শ ও ডাবল চিন থেকে মুক্তি পেতে চলে আসুন বায়োজিন স্কিন কেয়ার ক্লিনিক- শান্তিনগর, ধানমন্ডি, মিরপুর ও উত্তরায়। আমাদের ক্লিনিকের ডার্মাটোলজিস্টরা বলে দিবে ঠিক কোন ধরনের ট্রিটমেন্ট ও প্রোডাক্ট ব্যবহার করলে আপনি এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

ঘরোয়া পদ্ধতি, মুখ ও গলার ব্যায়াম, আমাদের ট্রিটমেন্ট এই সব ক’টি বিষয় একসঙ্গে কাজ করতে আরম্ভ করলেই চোয়ালের নিচে আলগা হয়ে ঝুলে পড়া ত্বকে ফিরে আসবে টানটান ভাব। অনেকে ওজন কমানোর পরেও চিবুকের নিচের ত্বকের টানটান ভাবটা আর ফিরিয়ে নিয়ে আসতে পারেন না, ত্বক ঝুলেই থাকে। সেটাকেও ডবল চিন মনে হতে পারে। এটাও কিন্তু রাতারাতি স্বাভাবিক হবে না, অনেকটাই সময় লাগবে। ততদিন পর্যন্ত যেটা ট্রাই করে দেখতে পারেন সেটা হচ্ছে মেকআপ টেকনিক।

মেকআপও ডাবল চিন কমাতে সাহায্য করে!! আরে, পাগল নাকি?? অনেকেই হয়তো এই কথাটা পড়ার পর মনে মনে এই টাইপ বিষয় বলে ফেলেছেন। অনেকেই হয়তো অবাক হয়েছে। কেউ কেউ হয়তো বিশ্বাসই করতে পারছেন না। কিন্তু আসল কথাটা হলো মেকআপ আসলেই আপনার ডাবল চিন ঢেকে দিতে পারে। মেকআপের কিছু শর্টকাটের আছে যা প্রয়োগ করলে ঢেকে যাবে ডাবল চিন। জেনে নিন মেকআপের কিছু বিশেষ কৌশল। ঠিকঠাক প্রয়োগ করতে পারলে কারও নজরেই পড়বে না আপনার ডবল চিন!

কৌশল ১: ঠোঁটের মেকআপের উপর জোর দিন। সত্যি বলতে, গাঢ় রঙের লিপস্টিকও আপনার চেহারা একদম পালটে দিতে পারে। ডবল চিন থেকে লোকের নজর ঘোরাতে গাঢ় লাল, গাঢ় খয়েরি শেডের লিপস্টিক পরুন। চকচকে লিপ গ্লসও লাগিয়ে নিতে পারেন। ঠোঁটে নাটকীয়তা এলে চিবুকের দিকে আর নজর যাবেই না।

কৌশল ২: হেয়ারস্টাইলের ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। চিবুকের ঠিক নিচে বা ঘাড় পর্যন্ত লম্বা চুলের কোনও স্টাইল করবেন না। চিবুকের নিচ পর্যন্ত লম্বা চুলে কার্ল চলবে না একেবারেই। বরং এমন কোনও স্টাইল করুন যাতে চিবুকের দিকটা বেশি নজরে না আসে। সমস্ত চুল একদিকে নিয়ে গিয়ে পনিটেল বাঁধতে পারেন।

কৌশল ৩: ঠোঁটের মতোই গাল আর চোখের মেকআপও সমান জরুরি। চোখের জন্য কোনও নরম রঙের আইশ্যাডো আর লাইনার বাছুন। উপরের দিকে ছোট ছোট টানে ব্লাশার লাগান গালে। চিবুকের খুঁত অনেকটাই ঢাকা পড়ে যাবে।

তবে একটা বিষয় বলে রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ- মেকআপের বিষয়টা কিন্তু একদম সাময়িক। মেকাপ ইনস্ট্যান্ট আপনার ডাবল চিন ঢাকতে পারবে কিন্তু দূর করতে পারবে না। দূর করার জন্য দরকার সঠিক পদ্ধতি, নির্দিষ্ট প্রোডাক্ট ও ট্রিটমেন্ট। আর দ্রুত ফলাফল পেতে ঘরোয়া কৌশলের পাশাপাশি ব্যবহার করুন বায়োজিনের পণ্য। ফলাফল পেয়ে যাবেন হাতেনাতেই। তবে এর জন্য আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে।

এছাড়া কোনো পরামর্শ ও জিজ্ঞাসার জন্য কল করুন-01708411472 / 01708411470 নাম্বারে। বায়োজিন আছে আপনার সাথে। ত্বকের যত্ন বিষয়ক টিপস, ট্রিটমেন্ট সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুন-https://bioxincosmeceuticals.com

Facebook Comments