সেন্সেটিভ ত্বকের কারন ও প্রতিকার

আমার ত্বকে কোন ক্রিমই ব্যাবহার করতে পারি না, খুবই সেন্সেটিভ ত্বক !!!

ইহা অধিকাংশ মেয়েদেরই ত্বকের ব্যাপারে অভিযোগ ।  ত্বক  সেন্সেটিভ হবার কারণে যে কোন ট্রিটমেন্ট নিতে খুব ভয় লাগে এবং কোন প্রসাধনী ব্যাবহারও কঠিন হয়ে পড়ে ।  আবার,বড় কোন প্রোগ্রামে যেতেও প্রসাধনী ব্যাবহারে ভয় লাগে, যদি ত্বকে ব্রণ হয় !!! আসুন, আজ আমরা জেনে নিই, ত্বকের সেন্সেটিভিটি বলতে আসলে কি এবং এই সমস্যা থেকে কিভাবে পরিত্রান পাওয়া যায় ।

সেন্সেটিভ ত্বক কি ?

সেন্সেটিভ ত্বক বলতে সেই ধরণের ত্বককে বোজায় যা প্রসাধনী ব্যাবহার সহ্য করতে পারে না  বা বাহিরের পরিবেশের সংস্পর্শতে আসলে সমস্যা হয়, সেই ধরণের ত্বককে সেন্সেটিভ ত্বক বলে । ত্বকের সেন্সেটিভিটি ত্বকের গুণাবলী দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় ।
সেন্সেটিভিটির কারণ
ত্বকের সেন্সেটিভিটির নানান কারন আছে যার ফলে ত্বকের চুলকানি, জ্বালা পোড়া করা বা অস্বস্তি বোধ করা ইত্যাদি সমস্যা হয় । আমাদের ত্বকের দুর্বলতায় স্নায়ু কোষে দ্রুত অনুভুতি চলে গিয়ে ত্বকের সেন্সেটিভিটি বাড়িয়ে দেয় অনেকগুন ।এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে ত্বকের সেন্সেটিভিটি বিভিন্ন হতে পারে যেমন রোদ বা শীতে ত্বকের সেন্সেটিভিটি ভিন্ন হতে পারে । ত্বকের সেন্সেটিভিটির মূল কারন সমূহ নিন্মরুপঃ

  • বায়ু দূষণ
  • পরিবেশের তাপমাত্রার তারতম্যের কারনে
  • ঠাণ্ডা বা খারাপ আবহাওয়া
  • পানিতে বেশি খনিজ উপাদান থাকলে
  • খুব গরম পানি
  • ঘুম কম হলে
  • শরীরের হরমোনের পরিবর্তনের ফলে
  • মানসিক চাপের কারনে
  • ত্বক শুষ্ক হলে
  • পানি শূন্যতায় ভুগলে

সেন্সেটিভ ত্বক কাদের হয়

গবেষণায় দেখা যায়, অধিকাংশ নারী ও পুরুষ অভিযোগ করে যে তাদের ত্বক সেন্সেটিভ। কিন্তু আসলে ত্বকের সেন্সেটিভিটির বিভিন্ন প্ররকারভেদ আছে এবং ত্বকের সেন্সেটিভিটির ও ভিন্নতা আছে । আপনি  হয়তো বিশেষ কোন সময়ে ত্বকে সমস্যা দেখছেন, তার মানে এই না যে আপনার ত্বক অনেক সেন্সেটিভ, কিন্ত আপনি যদি দেখেন যে প্রায় নিয়মিত আপনার ত্বকে সমস্যা দেখা দেয়, তার মানে আপনার ত্বক সত্যিই সেন্সেটিভ । সেন্সেটিভ ত্বকে সাধারনত লাল হয়ে যায় বা ত্বকে ব্রণ দেখা দেয় বা ত্বক বেশি তৈলাক্ত বা অন্য কোন সমস্যা নিয়মিত দেখা দেয়, তবে বুজতে হবে, আপনার ত্বক সত্যিই সেন্সেটিভ ।

কখন বুঝবেন যে আপনার ত্বক সেন্সেটিভ

  • যখন আপনি ত্বকে অস্বস্তি বোধ করছেন
  • ত্বক টান টান অনুভব করা বা ব্যাথা পাওয়া ।
  • ত্বক শীতে অনেক বেশি শুষ্ক হয়ে গেলে ।
  • ভ্রমণে গেলে ত্বক শুষ্ক হয়ে গেলে ।
  • ঝাল জাতীয় খাবারে গামিয়ে গেলে ।
  •  মাঝে মাঝে ত্বক লাল হয়ে গেলে বা আপনা আপনি সেরে গেলে
  • ত্বক অমসৃণ বা বেশি শুষ্ক বা রেশ দেখা দিলে
  • প্রসাধনী ব্যাবহারে ব্রণ হলে
  • ত্বকে চুলকানি দেখা দিলে
  • গোসলের পর ত্বক লাল হয়ে গেলে

সেন্সেটিভ ত্বকের জন্য কি করবেন?

যদি আপনার ত্বক খুব বেশি সেন্সেটিভ হয়, সেই ক্ষেত্রে ত্বকের চিকিৎসা নেয়া শুরু করা আবশ্যক, আর যদি খুব বেশি সেন্সেটিভ না হয়,তবে ত্বকের যত্ন নিলে ঠিক হয়ে যাবে । আপনি ঘরে বসেই ত্বকের সমস্যা সমাধান করতে পারেন ।
কুসুম গরম পানিতে, সাবান বিহীন cleanser দিয়ে হালকাভাবে মুখ ধুয়ে নিতে পারেন ।  তারপর ভালোভাবে মুখ শুকিয়ে নিতে পারেন। ভাল মানের Moisturizer আপনার ত্বকের স্বাবাভিক সোন্দর্য ফিরিয়ে দিতে পারে ।  যেই সব প্রধাধনী আপনার ত্বক সহ্য করতে পারে না, সেই সব প্রসাধনী বর্জন করুন ।  নিয়মিত ত্বকে সেরাম ব্যাবহার করতে পারেন যাতে আপনার ত্বক সবসময় Hydrate বা ত্বকে সঠিক পুষ্টি পায় । সেরাম ব্যাবহারের পর অবশ্যই ভাল মানের Moisturizer ব্যাবহার করতে হবে যেন ত্বক শুষ্ক হয়ে না যায় ।  যখনি আপনি ত্বকে অস্বস্তি অনুভব করবেন, তখনি আপনি এইগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

ত্বকের এলার্জি ও সেন্সেটিভিটির  মধ্যে প্রাথক্য কি ?

ত্বকে নির্দিষ্ট কিছু উপাদানের (Allergen) এর সংস্পর্শে আসলে ত্বকে যদি কোন সমস্যা দেখা দেয়, তবে তা এলার্জি জনিত সমস্যা ।  কিন্তু ত্বকের উপরিস্তরে যদি Nerve system কাজ না করে, তবে তা ত্বকের সেন্সেটিভিটির কারনে হয়ে থাকে ।
আপনি যদি কিছু কিছু জিনিষে এলার্জি থাকে, তখন ঐ সব জিনিষের সংস্পর্শে আপনার ত্বকে রেশ দেখা দিতে পারে বা কখনো কখনো ত্বক জ্বলতে পারে ।ত্বকের সেন্সেটিভি   এলার্জি জনিত সমস্যার মত এত বিসৃতভাবে দেখা যায় না ।  ত্বকের বিশেষ কিছু এলার্জি সমস্যা নিন্মরুপঃ ত্বকে সোনালী বা বাদামি দাগ পড়া ত্বকে রেশ উঠা ত্বকে চুলকানি ত্বক ফুলে যাওয়া ইত্যাদি ।  কিভাবে

ত্বকের সেন্সেটিভিটির চিকিৎসা হতে পারে ?

ত্বকের সেন্সেটিভিটির মূল কারন ত্বকের দুর্বলতা ।  তাই ত্বকের সেন্সেটিভিটি দূর করার জন্য ত্বকে পুষ্টি প্রদান করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ।  তাই, ত্বকে নিয়মিত সেরাম ব্যাবহার করা যেতে পারে, যাতে ত্বক নিয়মিত পুষ্টি পায় । এছাড়াও ক্যামিকেল বিহীন বিভিন্ন ট্রিট্মেন্ট নেয়া যেতে পারে যা ত্বকের ক্ষতি করবে না এবং একইসাথে ত্বকের প্রাকৃতিক পুষ্টি দিবে ।  ত্বক Exfoliate  ও করতে পারেন যাতে ত্বক নিয়মিত পরিষ্কার থাকবে ।

ত্বকের যে কোনো সমস্যার জন্য আপনি বায়ো-জিন কস্মেসিউটিক্যালস এ চলে আসতে পারেন।  এখানে সার্বক্ষণিক ডাক্তারের মাধ্যমে স্কিন কেয়ার ট্রিটমেন্ট দেয়া হয়।  যে কোনো ধরণের মেছতার স্থায়ী চিকিৎসায় জন্য সরাসরি চলে আস্তে পারেন।   আপনার যে কোন জিজ্ঞাসায় ০১৭০৮৪১১৪৭০ বা ০১৭০৮৪১১৪৭২ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

Related Product

[vc_column]

-50%
৳ 3,000 ৳ 1,500

Exclusive Skin Care

ZioLove Beauty Tea

View product
[/vc_column]

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *