ডায়ারিয়া প্রতিরোধে হাইজিনে মেনে বাসার খাবার গ্রহণে উদ্ভূত হোন

যারা বাইরের খাবার এ অভ্যস্ত হয়ে  পড়ছেন তারা সবচেয়ে

বেশি পেটের সমস্যায় ভুগছেন।

ফুড পয়জনিং এক ধরনের অসুস্থতা যা নষ্ট হয়ে যাওয়া খাবার গ্রহণ করার ফলে হয়ে থাকে। বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস  (সেলমোনেলা ও ই-কোলা অন্যান্য) দ্বারা যখন খাবারের গুনাগুন ( স্বাদ, গন্ধ ) ব্যাহত হয় সেই খাবার ব্যাক্তি গ্রহণের ফলে পেটের সমস্যা হয়। 

বেশিরভাগ সময় পেটের সমস্যার  জন্য চিকিৎসা বাসায় করা  হয় এবং এটা ১ দিন থেকে কিছুদিন ও থাকতে পারে তাই বলে এটাকে অবহেলা করা যাবেনা কারণ আপনার ফুড পয়জনিং কিংবা পেটের সমস্যা হওয়ায়  ফলে প্রচুর পরিমান পানি, মিনারেল দেহ থেকে বের হয়ে যায় যার ফলে  ডিহাইড্রেশনের সমস্যা হয়।

যে ধরনের লক্ষণ দেখা যায় –

প্রথমত, মাথা ধরা এবং ডায়ারিয়া হওয়া

দ্বিতীয়ত, বমি বমি ভাব, বমি হওয়া, দুর্বল অনুভব

তৃতীয়তঃ, পেটে ব্যাথা

চতুর্থত, শরীরের তাপমাত্রা হঠাৎ বেড়ে যাওয়া

পঞ্চমত, ডায়ারিয়া সাথে সাথে রক্তপাত।

 

অনেকক্ষেত্রে বাইরের খাবার গ্রহণ না করেও বাসার খাবার 

উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ বা রান্নার সময় খাবার নষ্ট হতে পারে সেক্ষেত্রেও আপনার পেটের সমস্যা হতে পারে।

শরীর দুর্বল হওয়ার দরুন ইমিউনিটি হ্রাস পায় দ্রুত ইমিউনিটি বৃদ্ধির জন্য যে ধরনের খাবার খাবেন-

#স্যালাইন  ঘন ঘন গ্রহণ করা 

#লিকুইড জাতীয় খাবার ( কচি ডাবের পানি)  গ্রহণ। 

#কলা গ্রহণ করা ( সহজে হজম হয়, আয়রন এর ঘাটতি দ্রুত পূরণ করে)

#নরম খাবার হিসেবে ভাত, আলু গ্রহণ এবং গলানো অবস্থায় গ্রহণ ( সহজ কার্বোহাইড্রেট তাই সহজে পরিপাক হয়)

#ডিমের সাদা অংশ গ্রহণ ( কুসুম পরিহার করা)

 

পেটের সমস্যার দরুন যে ধরনের খাবার কিছুদিন এড়িয়ে চলবেন ফলের জুস, ফাইবার বেশি আছে এ ধরনের সবজি

তেলে ভাজা খাবার, ক্যাফেইন, দুগ্ধজাতীয় খাবার সহ সকল ধরনের পেকেটজাত খাবার। 

 

পেটের সমস্যার দরুন ডাইজেশন ক্ষমতা দুর্বল হওয়ার পাশাপাশি অন্যান্য যে সমস্যাগুলো হয়

-ঘন ঘন বমি হওয়ায় দাঁতের এনামেল নষ্ট হয়ে যায় তাই  ঘন ঘন ব্রাশ কিংবা মাউথ ফ্রেশনার দিয়ে কুলকুচি করা।

– অতিরিক্ত ডিহাইড্রেশন থেকে পেনিক এটাক হতে পারে।

 

বাইরের খাবার এড়িয়ে বাসায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা মেনে খাবার রান্না এবং গ্রহণ করুন। প্রয়োজনে দিনে একবার এর জায়গায় দুবার গোসল করা ( কুসুম গরম পানি ব্যাবহার করে)।

 

Most. Nourin Mahfuj

Fitness Nutrition Specialist

Bio-xin Fitness solution

 

Facebook Comments